Hotline

+880 18777-71133

Investigation Support

+880 18445-22301

Medicine Support

+880 18445-22302

Open Hours

Sat - Thu : 10 AM - 8 PM

Frequently Asked Question

General


আর্ত নেটওয়ার্ক কয়েকজন তরুনের একটি উদ্যোগ যা বাংলাদেশের রোগীদেরকে চিকিৎসা সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয়ে সহায়তা করে থাকে।

না, আর্ত কোন এনজিও না। উদ্যোক্তাবৃন্দ নিজ উদ্যোগেই এই প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছেন। ওষুধ বিক্রয় হতে প্রাপ্ত লভ্যাংশের সাহায্যে এই প্রতিষ্ঠান পরিচালিত হয় এবং সহায়তা কার্যক্রম চলে।

আর্ত কোন প্রকার দেশী বা বিদেশী সাহায্য বা Donation গ্রহন করে না, নিজস্ব খরচে নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় পরিচালিত হয়। আর্ত যাদের জন্য Donation বা সহায়তার আবেদন জানায়, তাদের মোবাইল বা ব্যাংকিং একাউন্ট দেওয়া থাকে। সাহায্য দাতা উক্ত দুঃস্থ ব্যক্তিকে সরাসরি সাহায্য করেন।

না, আর্ত নেটওয়ার্কের সদস্য হওয়ার জন্য কোন প্রকার Membership Fee বা অর্থ প্রদান করার প্রয়োজন হয় না। যে কোন প্রকার সেবা গ্রহন করার জন্য Registration বাধ্যতা মূলক এবং তা সম্পূর্ণ বিনামূল্যে। তবে অত্যন্ত গরীব মানুষ, যাদের Smart Phone বা Computer এর সুবিধা নেই। তাদের জন্য যে কোন মেম্বার সেবার আবেদন করতে পারবেন।

টেলিমেডিসিন (Under Development), মান সম্পন্ন প্রতিষ্ঠান হতে কম মূল্যে পরীক্ষা নিরীক্ষা, কম মূল্যে মান সম্পন্ন ওষুধ, রক্তের সন্ধান করা, দরিদ্র শিশুদের চিকিৎসায় অর্থ সহায়তা প্রদান, ক্যান্সার রোগীদের জন্য কম মূল্যে কেমোথেরাপি ও পরীক্ষা নিরীক্ষা ইত্যাদি। টেলিমেডিসিন মডিউলটি বর্তমানে নির্মানাধীন আছে।

Blood Support


রক্তের প্রয়োজনে www.arto.org.bd তে Login করে Blood Support অপশনে যাবেন। সেখানে কি গ্রুপের রক্ত প্রয়োজন, কোথায় প্রয়োজন, রক্তের কি অংশ (Component) প্রয়োজন (যেমন, Whole Blood, Platelet, Packed Cell ইত্যাদি) এই সকল Box এ ক্লিক করে সিলেক্ট করে নিন। এর পর আপনি রক্ত কার কাছে খুজছেন-Blood Bank, অব্যবহৃত রক্ত, ব্যক্তি শ্রেণীর রক্তদাতা ইত্যাদি সিলেক্ট করে নিন। এর পর Search Button এ ক্লিক করলেই প্রয়োজনীয় রক্তের সন্ধান পেয়ে যাবেন।

Sign Up করার সময় আপনি রক্তদাতা হতে চান কিনা, সে মর্মে একটি Box আছে। সেটা সিলেক্ট করাই থাকে। আপনি রক্তদাতা হতে চাইলে Sign Up ছাড়া আর কিছু করতে হবে না।

আপনি Sign Up করার সময় “I Want to be a blood donor” Box এ ক্লিক করে ডিফল্ট সিলেক্ট তুলে দিন। তাহলে আপনাকে আর রক্তদাতার লিস্টে দেখানো হবে না। পরবর্তীতে আপনি রক্ত দিতে চাইলে, আপনার Profile এ গিয়ে Blood Donor অপশনে পরিবর্তন করতে পারবেন।

আর্ত নেটওয়ার্কের ওয়েবসাইটে রক্ত খোজার জন্য আপনাকে কোন খরচ করতে হবে না। এই সার্ভিস সম্পূর্ণ বিনামূল্যে নেটওয়ার্কের সকল সদস্য ও Blood Bank ব্যবহার করে। তবে রক্ত সংগ্রহ করার, পরীক্ষা করার এবং প্রতিষ্ঠানের অন্যান্য খরচের ব্যাপারে আর্তর কিছু করার নেই।

আর্ত নেটওয়ার্ক শুধুমাত্র অত্যন্ত উচ্চ গুনগত মান বজায় রেখে চলা Blood Bank এর Sponsorship গ্রহন করে। আপনার প্রতিষ্ঠান যদি Safe Blood Transfusion এর সকল সরকারী নীতিমালা মেনে চলে, তবে আপনার প্রতিষ্ঠানের মান বিবেচনা করে এবং বৈধ কাগজপত্র পরীক্ষা করে আমাদের নেটওয়ার্কে অন্তর্ভূক্ত করে নেওয়া হবে। আপনি Be Sponsor অপশনে বিস্তারিত লিখে জানান।

অনেক সময় অনেক রোগীর অপারেশনের জন্য রক্ত সংগ্রহ করা হয়, কিন্তু সেই রক্ত সঞ্চালনের আর প্রয়োজন পরে না। এই রক্ত Blood Bank এ পড়ে থাকে এবং মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে যায়। অন্যদিকে আরেক রোগী হয়ত এই রক্তের জন্যই হাহাকার করছে। এই সমস্যাকে ডিজিটাল প্লাটফর্মে সমাধানের চেষ্টা করেছে আর্ত নেটওয়ার্ক।

আপনি আপনার Profile এ Last Date of Donation Update করুন। তিন মাসের মধ্যে আপনাকে Search এ দেখাবে না।

Medicine Support


আর্ত নেটওয়ার্ক রোগীদের খরচ কমানোর জন্য যেকোন দেশী ওষুধে কমপক্ষে 12% ডিসকাউন্ট দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এই হার অধিকাংশ ওষুধের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে। Injectable ওষুধের ক্ষেত্রে বেশি লভ্যাংশ পাওয়া যায়। তাই সেক্ষেত্রে ডিসকাউন্টের পরিমানও বাড়বে, ক্ষেত্রবিশেষে আমরা 30% পর্যন্ত ডিসকাউন্ট দিব। তবে আপাতত সকল ওষুধে 12% ডিসকাউন্ট দেওয়া হচ্ছে। সময়ের সাথে সাথে এই ডিসকাউন্ট আপডেট করা হবে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্য মতে বাংলাদেশের বাজারে প্রায় 10% নকল ওষুধ। এই ওষুধের পুরোটাই আসে খোলা বাজারের মেডিসিন মার্কেট থেকে। এই নকল ওষুধের কারণে ভুক্তভোগী ওষুধপ্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান, সরকার এবং রোগী সবাই। আর্ত নেটওয়ার্ক খোলা বাজার থেকে কোন ওষুধ সংগ্রহ করে না। মূল্য যাই হোক, আর্ত শুধুমাত্র প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানের নিকট হতে সরাসরি ওষুধ সংগ্রহ করে। এতে করে নকল ওষুধ স্টকে ঢোকার সম্ভাবনা শূন্যে চলে আসে। তবে ওষুধ কোম্পানী কোন মানের ওষুধ দিল, তা আর্ত নেটওয়ার্কের পক্ষে দেখা সম্ভব নয়। বিপনন প্রক্রিয়ার মাঝেও যাতে কোন প্রকার নকল ওষুধ ঢুকতে না পারে, তার জন্য বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়। 1. ওষুধ ক্রয়, সংরক্ষন ও প্যাকেজিং এর সম্পূর্ণ প্রক্রিয়া CCTV দ্বারা পর্যবেক্ষিত হয় এবং রেকর্ড করা থাকে। 2. আর্ত নেটওয়ার্কের নিজস্ব প্যাকেজিং-এ ওষুধ সম্পূর্ণ সিল করে দেওয়া থাকে। প্যাকেট কেটে ফেলা ছাড়া এই সিল ভঙ্গ করা সম্ভব নয়। 3. প্রত্যেকটি প্যাকেজিং এর সাথে অর্ডারের সম্পূর্ণ লিস্ট এবং রোগীর পাঠানো ডকুমেন্ট যুক্ত করা থাকে। লিস্টে ওষুধের নাম, কোম্পানীর নাম, ব্যাচ নং, প্রস্তুতকরনের তারিখ এবং মেয়াদ উত্তীর্ণের তারিখ উল্লেখ থাকে। এই সকল তথ্য ওষুধের গায়েও লেখা থাকে। ক্রেতা এই সকল তথ্য মিলিয়ে সন্তুষ্ট হলে তবেই মূল্য পরিশোধ করবেন। অন্যথায় পন্য ফেরত দেওয়ার সকল অধিকার ক্রেতা সংরক্ষণ করে। এই সম্পূর্ণ প্রক্রিয়ায় কোন প্রকার সমস্যা হলে (যেমন, আইন প্রয়োগকারী কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সিল ভঙ্গ করে) ক্রেতাকে জানানো হবে।

মূল্য পরিশোধ আপনি ওষুধ হাতে পাওয়ার পর ডেলিভারি ম্যানের নিকট করতে পারেন (Cash on Delivery) বা অনলাইন পেমেন্ট মেথড ব্যবহার করতে পারেন। তবে Cash on Delivery আমাদের পছন্দের প্রক্রিয়া। এতে আপনি ওষুধ সম্পূর্ণ ভাল ভাবে বুঝে পাওয়ার পর মূল্য পরিশোধ করবেন। ডেলিভারি চার্জ ব্যতীত আপনাকে অন্য কোন খরচ করতে হবে না। অনলাইন পেমেন্ট মেথডের ক্ষেত্রে বিভিন্ন মেথডে ২.৫% থেকে ৩.৫% কর্তন করে আমাদের বিল দেওয়া হয়।আমাদের লভ্যাংশ খুব কম হওয়ায় এই অর্থ ক্রেতা সাধারনকেই বহন করতে হয়। অর্থাৎ আপনার পন্যের মূল্যের সাথে ডেলিভারি চার্জ ও পেমেন্ট মেথড চার্জ সংযুক্ত হবে। যা প্রকারান্তরে আপনার খরচ বাড়াবে। তবে যারা অনেক দূরে থেকে বা দেশের বাইরে থেকে স্বজনের জন্য ওষুধ কিনে পাঠাতে চান, তাদের জন্য আপাতত অনলাইন পেমেন্টের বিকল্প কোন কিছু আমাদের হাতে নেই।

আমরা আপাতত সম্পূর্ণ ঢাকা শহরে আমাদের এই সেবা প্রদান করছি। ঢাকার বাইরে থেকে এই সেবা প্রদান করতে হলে কুরিয়ার সার্ভিসে অতিরিক্ত খরচ পড়বে এবং রোগীকে অনলাইন পেমেন্ট করার পর পাঠানো হবে। অর্থাৎ ঢাকার বাইরের গ্রাহকরা Cash on Delivery সেবা পাচ্ছেন না।

আমাদের নিজস্ব ডেলিভারি সিস্টেম এই মুহুর্তে নেই। তাই আমাদের চুক্তিবদ্ধ কুরিয়ার সার্ভিসের উপর নির্ভরশীল, ঢাকার ভিতরে ডেলিভারির জন্য আমরা 24-72 ঘন্টা সময় নিয়ে থাকি।

এই মুহুর্তে আমাদের Emergency Medicine Delivery এর সুযোগ নেই। তবে অদূর ভবিষ্যতে শুরু করার পরিকল্পনা আছে। এখন জরুরি প্রয়োজনে নিকটস্থ ফার্মেসি থেকে ওষুধ কিনে নেওয়া উচিত হবে।

আইন অনুযায়ী শুধুমাত্র OTC (Over The Counter) ওষুধ ব্যবস্থাপত্র ছাড়া দেওয়া যাবে। এর বাইরের কোন ওষুধ কিনতে অবশ্যই ব্যবস্থাপত্র লাগবে।

১ হতে ৫০০ টাকায় = ৮০/- ৫০০ হতে ২০০০ টাকায় = ৬০/- ২০০০ হতে ৪০০০ টাকায় = ৪০/- ৪০০০ হতে ৬০০০ টাকায় = ২০/- ৬০০০ টাকার বা উর্ধ্বে = কোন চার্জ লাগবে না। ঢাকার বাইরে ডেলিভারির ক্ষেত্রে কুরিয়ারের চার্জ প্রযোজ্য।

ওষুধ ফেরত দিতে চাইলে আপনাকে অবশ্যই আগে জানতে হবে। ডেলিভারি ম্যান গেলে তাকে অবশ্যই আপনাকে সরবরাহকৃত ওষুধের নাম, কোম্পানি ব্যাচ, প্রস্তুতকরনের তারিখ এবং মেয়াদ উত্তীর্ণের তারিখ দেখিয়ে নিশ্চিত করতে হবে যে, আপনিাকে এই ওষুধই সরবরাহ করা হয়েছিল। কোন অসম্পূর্ণ পাতার ওষুধ, সীল নষ্ট করা হয়েছে এমন ওষুধ বা নষ্ট ওষুধ গ্রহণ ফেরত নেওয়া হবে না। এক মাসের অধিক সময় আগে সরবরাহ করা হয়েছে, এমন ওষুধ ফেরত নেওয়া হবে না। আমাদের কোন ত্রুটির কারণে যদি ওষুধ ফেরত দিতে হয়, তবে ওষুধ ফেরত আনার খরচ কর্তৃপক্ষ বহন করবে। অন্যথায় ঢাকার ভিতরে ৬০ (ষাট) টাকা চার্জ প্রযোজ্য হবে। ঢাকার বাইরে ওষুধ ফেরত নেওয়া সম্ভব নয়। ফেরত নিয়ে আসা ওষুধের গুন ও মান নিশ্চিত হওয়ার পর হিসাব করে কর্তৃপক্ষ উক্ত ওষুধের ক্রয়মূল্যের সমপরিমাণ অর্থ (৬০ টাকা চার্জ কর্তন করে) গ্রাহককে বিকাশ বা ব্যাংকে জমা দিবে দুই থেকে তিন কার্জ দিবসের মধ্যে।

বাংলাদেশে পাওয়া যায় এমন সকল ওষুধ আর্ত সরবরাহ করে। কিন্তু যে সকল ওষুধ নিয়ন্ত্রিত, অপব্যবহার হওয়ার সম্ভাবনা বেশি এবং যে সকল ওষুধের জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের অনুমোদন প্রয়োজন হয়, সেগুলো আমরা অনলাইন ডকুমেন্টের উপর ভিত্তি করে সরবরাহ করি না।

না। আপনি এক বার অর্ডার করে নিচের নিয়মিত ওষুধের জন্য box এ click করুন। মাসের নির্ধারিত সময়ে আমাদের প্রতিনিধি আপনার সাথে যোগাযোগ করে আপনার ওষুধ সরবরাহ করবে। নিয়মিত সরবরাহ করার box এ click না করলে, আপনার সাথে কেউ যোগাযোগ করে বিরক্ত করবে না। prescription এ কোন পরিবর্তন হলে নতুন করে পুর্ণাংগ অর্ডার দিতে হবে এবং নিচের নিয়মিত সরবরাহ করার অনুরোধ সম্বলিত box এ click করতে হবে।

আপনি যে কোন ভাবেই করতে পারেন। শুধুমাত্র prescription পাঠালে আমরা অর্ডার process করে আপনাকে ওষুধ পাঠিয়ে দিব। আর সবচেয়ে ভাল পন্থা হল, আপনি prescription পাঠানোর পাশাপাশি নির্দিষ্ট ওষুধ অর্ডার করে দিন। তাতে যে কোন ভুলের সম্ভাবনা কমে আসে।

যে ওষুধ এখন কোম্পানি থেকে সরবরাহ করা হয় না, অথবা নিয়ন্ত্রিত ওষুধ, সে সকল ওষুধ Search এ দেখানো হয় না। valid prescription এর উপর ভিত্তি করে এসব ওষুধের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এ ধরনের সমস্যা হলে prescription আপলোড করুন, মন্তব্যের ঘরে আপনার সমস্যা জানান, অথবা সরাসরি medicine support number এ ফোন করেও জানাতে পারেন। আমাদের প্রতিনিধি আপনার সমস্যা সমাধান করতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করবেন।

online payment method এ আপনি ওষুধ ক্রয় করতে চাইলে, প্রতিবার অর্ডার দিয়ে নিশ্চিত হয়ে অর্থ প্রদান করুন। প্রতিবারই আলাদা অর্ডার করতে হবে।

অর্ডার বাতিল করতে চাইলে আপনার রেজিস্ট্রেশনকৃত ফোন নাম্বার থেকে medicine support number এ অফিস চলাকালীন সময়ে ফোন দিন। যদি আপনার ওষুধ ডেলিভারির জন্য দেওয়া হয়ে থাকে, তবে ডেলিভারি চার্জ ও payment method এর চার্জ বাদ দিয়ে বাকি অর্থ আপনার বিক্যাশ বা ব্যাঙ্ক একাউন্ট নাম্বারে ৫-৭ কার্যদিবসের মাঝে জমা করে আপনাকে জানিয়ে দেয়া হবে। ডেলিভারি না হলে, শুধু payment method এর চার্জ কর্তন করা হবে।

আমাদের database এ আপাতত শীর্ষস্থানীয় ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানিগুলোর ওষুধের entry দেওয়া আছে। এখানে অধিকাংশ ওষুধের নাম পাওয়া যাবে। বাকি সকল কোম্পানির ওষুধ আমরা এন্ট্রি করছি। অসম্পুর্নতার জন্য দু;খীত।

Investigation Support


রোগ নির্নয়ের ক্ষেত্রে গুনগত মানকে সর্বোচ্চ মূল্যায়ন করে আর্ত। আমরা শুধুমাত্র সেইসব প্রতিষ্ঠানের উপরে আস্থা রেখেছি, যারা গুনগত মান নিয়ে আপোষ করে না। তাদের পরীক্ষা নিরীক্ষায় কিছু ডিসকাউন্ট করার চেষ্টা করেছি। ১০-৩০ % পর্যন্ত ডিসকাউন্ট আমরা আর্ত নেটওয়ার্কের রোগীর জন্য ব্যবস্থা করার চেষ্টা করি। সবক্ষেত্রে আমরা পারবো এমন আশ্বাস দেই না। সবাইকে সাহায্য করা সম্ভব না। আমরা অনেক শর্তে বাধা। সেসব মেনেই চলতে হয়। তবে অনেক রোগীকেই আমরা সাহায্য করতে পারব আশা রাখি। যে কেউ ডিসকাউন্টের জন্য আবেদন করতে পারবে। আমাদের শর্ত অনুযায়ী সম্ভব হলে আমরা অবশ্যই সাহায্য করব। এর জন্য কাউকে কোন প্রকার অর্থ প্রদান করতে হবে না।

আর্ত নেটওয়ার্কের স্পন্সরশিপের জন্য অবশ্যেই মান সম্পন্ন প্রতিষ্ঠান হতে হবে। Be a Sponsor ট্যাবে গিয়ে আপনার প্রতিষ্ঠানের বিবরণ দিয়ে আমাদের অবহিত করুণ। আমরা মান যাচাইয়ের পরে গুনগত মানে সন্তুষ্ট হলে আপনার প্রতিষ্ঠান আর্ত নেটওয়ার্কের স্পন্সর হতে পারবে।

আর্ত নেটওয়ার্কের স্পন্সর যেসব স্থানে বা শহরে আছে, সর্বত্রই এই সেবা পাওয়া যাবে। ধীরে ধীরে এর পরিধি বাড়ছে। এই সেবা দেশ ব্যাপী।

এই সুবিধা পেতে আপনাকে অবশ্যই আর্ত নেটওয়ার্কের সদস্য হতে হবে। User Pannel এ Login করলে উপরে Investigation নামে ট্যাব দেখতে পাবেন। তাতে Click করলে Direct Request এবং Upload Document নামে দুটি ট্যাব দেখতে পাবেন, আপনি নিজ উদ্যোগে বিশেষ কোন পরীক্ষা করতে চাইলে Direct Request অপশন ব্যবহার করুন এবং পরীক্ষা Select করার পরে নির্দেশনা অনুসরণ করুন্ অথবা আপনি আপনার ব্যবস্থাপত্রের কপি আপলোড করতে পারেন Upload Document এ Click করে।বাকিটা আমাদের কাজ। কখনও কখনও অনুরোধের চাপ বেশি থাকলে দয়া করে ধৈয্য ধরে কিছু সময় অপেক্ষা করার অনুরোধ থাকবে আমাদের পক্ষ হতে। ওয়েবসাইটে সমস্যা হলে বা সরাসরি কথা বলতে চাইলে 01844522301 নাম্বারে কল দিতে পারেন। আপনাদেরকে সাহায্য করার সর্বোচ্চ চেষ্টা আমরা করব।

আমরা ভুলের উর্ধ্বে নই। আমাদের কোন প্রকার ভুল হলে তৎক্ষনাৎ Investigation Support Number এ কল করে সমস্যার কথা বর্ননা করুন। আমরা ভুল শুধরে নিতে বদ্ধ পরিকর।

বর্তমানে আজগর আলী হাসপাতাল, প্রাভা হেলথ, অথেনটিক ডায়গনস্টিক এন্ড কনসালটেশন লিঃ এবং ল্যাব এইড এর সকল শাখা হতে এই সেবা দিচ্ছি।

ডিসকাউন্টের পরে বাকি আপনি নির্ধারিত সেন্টারে প্রদান করবেন। আর্ত নেটওয়ার্ক কোন প্রকার অর্থ রোগীর নিকট হতে গ্রহন করে না।

1. ল্যাবএইড সকল শাখা Laboratory Test – 20%, Radiological Test – 10% 2. আসগর আলী হাসপাতাল সকল পরীক্ষায় 15% 3. প্রাভা হেলথ Laboratory Test – 25%, Radiological Test – 15% 4. অথেনটিক ডায়গনস্টিক এন্ড কনসালটেশন লিঃ Laboratory Test – 30%, Radiological Test – 20%

Financial Support


আর্ত নেটওয়ার্ক এখনও শৈশবে। তার সক্ষমতা সীমিত্। তার পরেও এই সীমিত সক্ষমতার মাঝে হতদরিদ্র শিশুদের চিকিৎসায় নিজেদের আয়ের একটি অংশ ব্যবহার করে। পাশাপাশি এই চিকিৎসা ব্যয়ের বাকি অংশ বহন করার জন্য আর্ত নেটওয়ার্কের বাকি সদস্যদের কাছে সহায্যের আবেদন করে।

-শিশুর বয়স অনুর্ধ্ব ১২ বছর, -শুধুমাত্র সরকারি প্রতিষ্ঠানে চিকিৎসারত শিশুরা এই সুবিধা পাবে। -অত্যন্ত দরিদ্র পরিবারের শিশুরাই এই সুবিধা পাবে। -সহায়তার জন্য নির্ধারিত ফর্ম পূরণ করে চিকিৎসকদের স্বাক্ষর সহ চিকিৎসা সংক্রান্ত সকল কাগজপত্র আপলোড করতে হবে। সাথে বিকাশ / রকেট নাম্বার বা ব্যাংক একাউন্টের নাম্বার প্রদান করতে হবে। -আর্ত নেটওয়ার্ক থেকে নির্ধারিত তদন্তের পর সত্যতা প্রমানিত হলে সাহায্যের আবেদন ওয়েবসাইটে আপলোড করা হবে। -যারা আবেদন করবেন, তাদের প্রত্যেককে সাহায্য করা আর্ত নেটওয়ার্কের পক্ষে সম্ভব নয় এবং সাহায্য প্রাপ্তির গ্যারান্টি দেওয়াও সম্ভব নয়।

সাহায্যের আবেদন যে কেউ জানাতে পারবেন। আমরা ধরে নিতে পারি অত্যন্ত দরিদ্র ব্যক্তি, যার সাহায্য প্রয়োজন তিনি স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটার ব্যবহারের সুযোগ পান না, তার জন্য অন্য যে কোন সদস্য আবেদন করতে পারবে। অবশ্য সাহায্য প্রার্থীকে সাহায্য গ্রহণ করার জন্য অবশ্যই নিজস্ব ব্যাংক একাউন্ট অথবা মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট অথবা উভয়টি থাকা বাধ্যতামূলক। উক্ত একাউন্ট আর্ত থেকে ভেরিফাই করার পর ওই একাউন্ট নাম্বার সহ সাহায্যের আবেদন প্রকাশ করা হবে। সাহায্যদাতাগন সরাসরি উক্ত একাউন্টে সাহায্য প্রদান করবেন।

না, আর্ত বেসরকারি বা কর্পোরেট প্রতিষ্ঠানে ভর্তিকৃত কোন শিশুর জন্য চিকিৎসার আবেদন প্রকাশ করে না, এমন কি সরকারি প্রতিষ্ঠানে কেবিনে ভর্তি রোগীর জন্যও সহায়তার আবেদন প্রকাশ করা হবে না। এতে এক শিশুর জন্য যে খরচ হবে সরকারি ভাবে একই খরচে হয়ত আমরা 10 জন শিশুকে সাহায্য করতে পারব। আর যিনি আসলেই দরিদ্র অসচ্ছল, তিনি যত কষ্টই হোক সরকারি প্রতিষ্ঠানেই চিকিৎসা নেন। আমরা সেই শ্রেণীর লোকের সাহায্যে এগিয়ে আসতে চাই।

আমাদের দেশে সরকারি প্রতিষ্ঠানে চিকিৎসা ব্যয় সরকারি ভাবে অনেকাংশেই বহন করা হয়। এতে কম ব্যয়ের চিকিৎসা রোগীরা অনেক কম খরচেই করতে পারেন। কিন্তু সকল ওষুধের সরবরাহ থাকে না সরকারি হাসপাতালে। বড় বড় অপারেশনের (যেমন হৃদযন্ত্রে সার্জারি, কিডনি সার্জারি, জন্মগত বিভিন্ন সমস্যার চিকিৎসা ইত্যাদি) জন্য ভর্তি শিশুর সরকারি খরচের বাইরেও বড় অংকের টাকা ওষুধ, অপারেশনের প্রয়োজনীয় সামগ্রী ক্রয় করতে এবং পরীক্ষা নিরীক্ষা করতে ব্যয় হয়ে যায়। তখনই সাহায্যের প্রয়োজন পরে।

যে শিশুর জন্য সাহায্য চাওয়া হবে, তার সম্পর্কে সকল তথ্য প্রকাশ করা হবে। আপনি তাকে সরাসরি দেখা করে অর্থ প্রদান করতে পারেন। বা ওয়েবসাইটে প্রদত্ত ব্যাংকিং বা মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্টে টাকা পাঠাতে পারেন। টাকা পাঠানোর পর Donation Console এ Donate ট্যাব এ ক্লিক করলে টাকার পরিমাণ এবং ডকুমেন্ট আপলোড করতে বলা হবে। এক্ষেত্রে আপনি Screenshot ব্যবহার করতে পারেন ডকুমেন্ট হিসেবে। ওয়েবসাইট এডমিন ভেরিফাই করে হিসাবে যোগ করবেন এবং প্রকাশ করবেন। প্রয়োজনীয় অর্থ সংগ্রহ করা হয়ে গেলে আবেদনটি সরায়ে ফেলা হবে এবং সম্পূর্ণ হিসাব ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে।

তা একান্ত আপনার ব্যক্তিগত ব্যপার। কোন বাধ্যবাধকতা নেই। আপনি আপনার নাম প্রকাশ করে বা না করে দান করতে পারেন।

বিদেশ থেকে বাংলাদেশের মোবাইল বা ব্যাংক একাউন্টে যদি টাকা পাঠাতে কোন সমস্যা না থাকে, তবে আপনি সরাসরি সাহায্যপ্রার্থীকে পাঠান। আর্ত নিজস্ব কোন ব্যাংক একাউন্টের তথ্য প্রদান করবে না বা টাকা সংগ্রহ করার মধ্যস্থতাকারীর কাজ করবে না। আর যদি বিদেশ থেকে টাকা পাঠানোতে জটিলতা থাকে, তবে অনুগ্রহপূর্বক আপনার বিশ্বাসভাজন কাউকে অর্থ পাঠিয়ে দিন, যিনি আপনার হয়ে বাংলাদেশী টাকায় সরাসরি সাহায্য প্রার্থীকে সহায়তা করবেন।

এটা অত্যন্ত যৌক্তিক ও গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন। আর্ত নেটওয়ার্ক এখানে অত্যন্ত কঠোর অবস্থানে আছে। সাহায্যের কোন অর্থ কোন কারনেই কখনই আর্ত নেটওয়ার্কের একাউন্টে লেন দেন হবে না। সাহায্য দাতা সরাসরি রোগীর সাথে দেখা করে টাকা দিতে পারবেন। তার মোবাইল নাম্বারে কথা বলে পরিচিতি নিশ্চিত হয়ে উক্ত নাম্বারে টাকা প্রদান করবেন। অথবা অন্য যে কোন প্রকারে সাহায্যকারী নিশ্চিত হতে চাইলে তাকে প্রয়োজনীয় যে কোন সাহায্য আর্ত করবে। স্বচ্ছতার জন্য প্রতিটি হিসাব ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে। আর্ত নিজে এই সব শিশুদের সাহায্য করে এবং অন্য সদস্যদের প্রদত্ত অর্থের কমপক্ষে ১০০% অর্থ সাহায্য প্রার্থীর প্রাপ্তি নিশ্চিত করে।

সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা চলাকালীন সময়ে রোগীদের চিকিৎসা ব্যয়ে সাহায্য করার জন্য একটি করে সমাজ সেবা অফিস ও কর্মকর্তা থাকেন। সেখানে কিছু সাহায্য পাওয়া যায়। এর বাইরে কিডনী, লিভার বা হৃদরোগে আক্রান্ত রোগীদের জন্য সরকারি সাহায্যের কিছু প্রকল্প আছে। সাধারণ মানুষ না জানার কারণে ওই সুবিধা নিতে পারে না। আমরা আমাদের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে তা জানানোর চেষ্টা করেছি এবং সরকারি নীতিমালা ও ফর্ম সংগ্রহ করার সুযোগ রেখেছি।

জন্মগত হৃদরোগে আক্রান্ত শিশুদের অপারেশন অত্যন্ত ব্যয়বহুল এবং ঝুকিপূর্ণ। এই ব্যয় বহন করা দরিদ্র পরিবারের পক্ষে কোন ভাবেই সম্ভব নয়। এমনকি মধ্যবিত্ত পরিবারও হিমশিম খাবে। এই শিশুদের সাহায্যার্থে আর্ত নেটওয়ার্ক Little Heart Project এর সহযোগী হিসেবে কাজ করছে। এই প্রজেক্টের আওতায় শিশুদের Heart সার্জারির জন্য অর্থ বরাদ্দ আসে কিন্তু তা সম্পূর্ণ ব্যয় বহন করে না। বাকি অর্থ আর্ত নেটওয়ার্ক তার নিজস্ব পদ্ধতিতে সংগ্রহ করার চেষ্টা করে।

নির্ধারিত ফর্মে আবেদন করতে হবে। আমাদের শিশু হৃদসার্জারি বিশেষজ্ঞ দেখার পর যদি অপারেশন সম্ভব হলে আপনার আর্থিক সামর্থ্য বিবেচনা করে সাহায্যের জন্য চেষ্টা করা হবে। আর্ত নেটওয়ার্ক ও Little Heart Project যৌথভাবে আপনার শিশুর অপারেশনের খরচ যোগাড় করে দেওয়ার চেষ্টা করবে। তবে সকল শিশুকে আংশিক বা সম্পূর্ণ সাহায্য প্রদান করার গ্যারান্টি আর্ত নেটওয়ার্ক প্রদান করে না।

ক্যানসার চিকিৎসায় ব্যয় ও বিড়ম্বনার শেষ নেই। এই রোগীদের জন্য আমাদের সাধারণ সেবা যেমন: ডিসকাউন্টে ওষুধ ও পরীক্ষা নিরীক্ষার পাশাপাশি আমরা আরও কিছু সেবা দেওয়ার চেষ্টা করছি। যেমন হাসপাতাল খরচ কমানো, Chemotherapy এবং Radiotherapy এর খরচ কমানো ইত্যাদি। আমাদের সকল প্রচেষ্টা এখনও সফল হয়নি। Chemotherapy ওষুধ পাওয়ার জন্য অবশ্যই কমপক্ষে ৪৮ ঘন্টা আগে জানাতে হবে, কারণ এই ওষুধ আমরা সংরক্ষণ করি না। অর্ডার অনুযায়ী সংগ্রহ ও বিপনন করা হয়।